মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

সোনালী মুরগি-লতিরাজ জয়পুরহাটের গর্ব আজ।


পণ্য, খাবার, পর্যটন কিংবা সাংস্কৃতিক বা লোকজ ঐতিহ্যে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা স্বাতন্ত্রমন্ডিত। জেলা ব্রান্ডিং এর মাধ্যমে এ স্বাতন্ত্রকে বিশ্ব দরবারে উপস্থাপনের জন্য মৌলিক লোগো এবং লোগো পরিচিতিমূলক ট্যাগলাইন/শ্লোগান অপরিহার্য। লতিরাজ কচু এবং সোনালী মুরগী জয়পুরহাটকে অন্নপূর্ণা জেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। প্রায় ১২০০ হেক্টর জমিতে লতিরাজ কচুর চাষাবাদ এবং প্রায় ৫০০০ টি খামারে সোনালী মুরগী লালন-পালন করা হচ্ছে। জেলার চাহিদা পূরণের পর দুটি পণ্যই দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরবরাহ করা হয়ে থাকে। অধিকন্তু রাজধানীর কিছু রফতানীকারক প্রতিষ্ঠান লতিরাজ কচু প্রক্রিয়াজাত করে কুয়েত, মালয়েশিয়া, সিংগাপুর, সৌদি আরব সহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে রপ্তানী করে থাকে। ফলে কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনসহ এ জেলার মানুষের মাথাপিছু আয় বৃদ্ধিতে পণ্য দুটি গুরুত্বপুর্ণ অবদান রাখছে। এছাড়া জেলার অবকাঠামো উন্নয়ন ও মানুষের উন্নত জীবনমান, “সবার জন্য টেকসই অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং উপযুক্ত কর্মসংস্থানের (Decent Work) ব্যবস্থা করা” –শীর্ষক ৮নং SDG অর্জনের মাধ্যমে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে উল্লিখিত জেলা ব্রান্ডিং কার্যক্রম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।